শিরোনাম :
চন্দনাইশকে ১০-০ গোলে বিধ্বস্ত করলো আনোয়ারা Worldwide virtual Webinar-2 on “Hybrid Learning with Kahoot! ” Organized by “Global Educators’ Community” & Hosted by Nazmul Haque, Bangladesh ইউপি মেম্বার পদে পারভেজ উদ্দিন রাসেল নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ২৩ জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠার দিন: মোহাম্মদ হাসান চট্টগ্রামে “বিশ্ব হাইড্রোগ্রাফি দিবস-২০২১’এর সেমিনার অনুষ্ঠিত হযরত শাহ মোহছেন আউলিয়া (রহঃ)’র পবিত্র ওরশ মোবারক আজ অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানো শিখিয়েছে নিষ্ঠা ফাউন্ডেশন : ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের ফল উৎসব’ কর্ণফুলীর মইজ্জারটেকে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১৫ আহত ২০ চান্দগাঁও পবিত্র জশনে জুলুছে ঈদে-এ মিলাদুন্নবী (দ.) উদযাপন পরিষদের কাউন্সিল অধিবেশন সম্পন্ন

ঢাকার মাতুয়াইলে অগ্নিকাণ্ডে পাশা টাওয়ারের ৩তলা থেকে ৯তলা পুড়ে ছাই

মোহাম্মদ হাসানঃ ঢাকার ডেমরার মাতুয়াইলের কোনাপাড়া বাদশা মিয়া রডে ১০তলা পাশা টাওয়ারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৩তলা থেকে ৯তলা পর্যন্ত পুড়ে ছাই হয়েগেছে। ১০ঘনটারও অধিক সময় ধরে ফায়ার সার্ভিসের ১৬ ইউনিটে ১৬০ দমকলকর্মী নিরলস চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছেন। তবে কোন হতাহতের খবর মেলেনি।

ঘটনার বিবরণে প্রকাশ, গতকাল ৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেল প্রায় ৫ ঘটিকার সময় বহুতল এ ভবনটিতে আগুন লাগার খবর পেয়ে ধাপে ধাপে ফায়ার সার্ভিসের ১৬টি ইউনিট ঘটনাস্থলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে চেষ্টা চালায়। ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের কন্ট্রোল রুমের ডিউটি অফিসার মাহফুজ সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ফায়ার সার্ভিসের ১৬টি ইউনিট ঘটনাস্থলে চেষ্টা চালিয়ে বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ২টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। ভবনের ছয় তলাতে লাগা আগুনে তিন তলা থেকে নয় তলা পর্যন্ত পুড়ে শেষ হয়ে গেছে।

ফায়ার সার্ভিসের মহা-পরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসেনের বরাতে একটি সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছেন , পুরো ভবনটি করা হয়েছে অপরিকল্পিতভাবে। আশেপাশে কোনো জায়গা ছাড়া হয়নি। ১০তলা ভবনটির প্রায় পুরোটাতেই ধার্য্য পদার্থে ভরপুর ছিল। আগুন নেভানোর জন্য কাজ করার কোনো পরিবেশ নেই। একটি মাত্র সরু রাস্তা। সেই রাস্তার দুই দিকে খাল। ঝুঁকিপূর্ণভাবে ল্যাডার লাগিয়ে ক্রেন উঠানো হয়েছে। ক্রেন ঘুরিয়ে কাজ করা যাচ্ছে না। ক্রেন ছাড়া অন্য কিছু এখানে ব্যবহারও করা যাচ্ছে না। যার ফলে আগুন নিয়ন্ত্রণে সময় লেগেছে।

একাধিক স্থানীয় এলাকাবাসীর মতে, দশতলা ওই ভবনটি রাজউক থেকে সম্পূর্ণ আবাসিক হিসেবে অনুমোদন নিলেও বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছিল। খোদ ভবনমালিক জলিল পাশা নিজেও চীন
থেকে নানা বৈদ্যুতিক মালামাল আমদানি করে এখানে মজুদ করতেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৬৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মতিন সাউদ সংবাদকর্মীর প্রশ্নের জবাবে বলেন, আশপাশের ভবন থেকে নীতিগতভাবে যতটা দূরত্ব বজায় রেখে এ ভবনটি নির্মাণ করা উচিত ছিল, নির্মাণকালে তা মানা হয়নি। শুধু এ ভবনটিই নয়, তার আওতাধীন ওয়ার্ডের অধিকাংশ ভবনের ক্ষেত্রেই এমনটি হয়েছে।এসব ভবনে অগ্নি নির্বাপণের কার্যকর কোনো ব্যবস্থা রাখা হয়নি। তিনি প্রশ্ন রাখেন- রাজউক কীভাবে এমন অপরিকল্পিত ভবন নির্মাণের নকশা অনুমোদন দেয়?

এদিকে অপরিকল্পিত ভবন নির্মাণ, আবাসিককে বাণিজ্যিক ভাবে ব্যবহারকারী ভবনটির মালিক জলিল পাশা আগুন দ্রুততম সময়ে নেভাতে না পারার জন্য ফায়ার সার্ভিসের খামখেয়ালিকে দায়ী করেছেন।

(Visited 17 times, 1 visits today)