শিরোনাম :
লোহাগাড়ায় শিক্ষার উন্নয়নে কাজ করে যাবো, ডিজিটাল গ্রামার স্কুলের অভিভাবক সমাবেশে ইউএনও হাসেম সওদাগরের জানাজার নামাজে হাজারো মানুষের ঢল ইলিয়াছ মিয়া চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ে মাদক বিরোধী ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা ভিইসি কনফারেন্স ২০২২” এর প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত লক্ষ্মীপুরে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় শ্রমিকের মৃত্যু রাঙ্গুনিয়ায় কোদালা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন বাংলাদেশ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআ’ত মীরসরাই উপজেলা প্রতিনিধি সম্মেলন সম্পন্ন ভিইসি’র আয়োজনে ‘ব্লেন্ডেড শিক্ষায় আমাদের করণীয়’ শীর্ষক ভার্চুয়াল সেমিনার অনুষ্ঠিত

ই-কমার্স ইন্সটিটিউট করতে চান আরিফ চৌধুরী

জাহিদুল আলম শাহ(সহ-সম্পাদক): ই-ক্যাব পরিচালক পদপ্রার্থী, স্কুপ ইনফোটেক লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সদাগর.কম এর প্রতিষ্ঠাতা সিইও, আরিফ মোহাম্মদ আবদুস শাকুর চৌধুরী ইকমার্স ইন্সটিটিউট করতে চান। উল্লেখ্য আগামী  ১৮ জুন ইক্যাব নির্বাচন অনুষ্ঠিত হব।  উনার ভোটার নং ১৩৯। তিনি এক বিশেষ সাক্ষাতকারে চট্টগ্রাম ট্রিবিউন এর মুখোমুখি হয়েছেন। নিম্নে তাঁর সাক্ষাতকার তুলে ধরা হল-

চট্টগ্রাম ট্রিবিউন: আপনি নিজেকে ই-ক্যাব নির্বাচনে একজন যোগ্য প্রার্থী বলে মনে করেন কেন?

আরিফ: কারন আমি ১০ বছর এই ইন্ডাস্ট্রিতে এবং টোটাল ইকমার্স ইকোসিস্টেমের বিভিন্ন কম্পোনেন্টে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। নিজে বিজনেস দাড় করাইতে গিয়ে অনেক চড়াই উতরাই পার হতে হয়েছে, হতে হয়েছে অনেক বাধার সম্মুখীন , তসি আমি কিছুটা হলেও জানি এই সেক্টরের উন্নয়নে কি কি করা প্রয়োজন।

চট্টগ্রাম ট্রিবিউন:
এতদিন ই-কমার্স সেক্টরে আপনার উল্লেখযোগ্য অবদান কি কি?

আরিফ:
ইকমার্স ব্যবসার প্রধান কম্পোনেন্ট হলো ওয়েবসাইট এবং এপ, আমার কোম্পানি “স্কুপ ইনফোটেক লি:” এর মাধ্যমে কম খরচে সাইট এবং এপ ডেভেলপ করে থাকে। বি২বি কোম্পানি সদাগর.কম এর মাধ্যমে অনলাইন ব্যবসায়ীদের এবং প্রত্যন্ত অঞ্চলের ব্যবসায়ীদের পন্যের সোর্সিং সহজিকরন, খুদ্র উতপাদনকারির পন্য সারা দেশে ডিস্ট্রিবিউশন , দেশী পন্যের বিদেশী বাজার সম্প্রসারন, সদাগর প্লাটফর্ম এর সাথে যুক্ত খুদ্র অনলাইন উদ্যোক্তাদের জামানত বিহিন লোন এর ব্যবস্থা, ব্যবসায়ীদের জন্য স্মার্ট লজিস্টিক ব্যবস্থা, অনলাইন কোরবানি হাট, শষ্য উতসব ( কৃষকের পন্যের অনলাইন বিপনন) ইত্যাদি।

চট্টগ্রাম ট্রিবিউন: নির্বাচিত হলে ই-কমার্স সেক্টরের উন্নয়নে কি কি করতে চান আপনি?

আরিফ: ইকমার্স ইনস্টিটিউট, ব্যবসায়ীদের জন্য ২৪/৭ হেল্প লাইন, অনলাইন উদ্যোক্তাদের সহজ লোন এবং ভিসি ফান্ডিং, লিগ্যাল কনসাল্টেন্সি উইং, দেশী পন্যের বিদেশী বাজার সম্প্রসারণ , ফ্রড প্রটেকশন মেকানিজম, ইক্যাব ভেরিফাইড ব্যাজ, বিভাগিয় ইক্যাব অফিস।

চট্টগ্রাম ট্রিবিউন: আসন্ন ই-ক্যাব নির্বাচন নিয়ে আপনাদের প্রত্যাশা কি?

আরিফ: ফুল প্যানেলে বিজয়ী হওয়া।

চট্টগ্রাম ট্রিবিউন:
আপনাদের প্যানেল ঐক্য সম্পর্কে বলুন। কেন এই প্যানেল করলেন আপনারা?

আরিফ: আমরা ব্যবসায়ী বান্ধব ইক্যাব গঠনে ঐক্যবদ্ধ প্যানেল। আমরা নির্বাচনের আগে যেভাবে আছি পরেও একইভাবে ইক্যাব মেম্বারদের কল্যানে কাজ করে যবো, আমরা নির্বাচিত হই বা না হই। আমাদের প্যানেলের মোটো এগিয়ে চলি একসাথে।

চট্টগ্রাম ট্রিবিউন: আপনাদের নির্বাচনী এজেন্ডার ইউনিকনেস বা অনন্যতা কী? ভোটাররা কেন আপনাকে ভোট দেবে?

আরিফ: আমাদের নির্বাচনী এজেন্ডার অন্যতম প্রতিশ্রুতি ইকমার্স ইন্সটিটিউট প্রতিষ্ঠিত করা। ইক্যাব এর নিজস্ব অফিস ভবন করা। লিগ্যাল কনসাল্টেশন উইং প্রতিষ্ঠিত করা।ব্যবসায়িদের জন্য কল্যান তহবিল গঠন করা। ইকমার্স পন্যের মাইক্রো ইন্স্যুরেন্স এর ব্যবস্থা করা ইত্যাদি কারনে আমাকে ভোট দেবে বলে আমি আশাবাদী।

চট্টগ্রাম ট্রিবিউন: আপনার নির্বাচনে আসার সঠিক সময় কি এখন?

আরিফ: আমি মনে করি হ্যা। কারন এতদিন আমি ব্যবসা দাড় করিয়েছি, এখন আমি ইন্ডাস্ট্রির সেবায় সময় দিতে পারবো, এবং যথেস্ট অভিজ্ঞতাও হয়েছে ইন্ডাস্ট্রিকে দেবার মত।

(Visited 50 times, 1 visits today)