শিরোনাম :
বিজিএমই সহ-সভাপতি রাকিবুল আলম চৌধুরী নারায়ণহাট মাদ্রাসার সভাপতি নির্বাচিত সিলেট সুনামগঞ্জ বানভাসীদের মাঝে ফেনী জেলা ‘নিজের বলার মত গল্প ফাউন্ডেশন’ এর ত্রাণ বিতরণ স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে চবি কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন || প্রধানমন্ত্রীকে চট্টগ্রাম ট্রিবিউন পরিবারের অভিনন্দন মানবতার নায়ক আবদুস সামাদ স্যার, সবার জন্য অনুসরনীয় রামগঞ্জে খালের উপর থাকা নির্মাণাধীন দুইটি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছে স্বামী-স্ত্রী মাদক কারবারী, বিশেষ অভিযানে ৫মাদক কারবারী লোহাগাড়ার শ্রীঘরে, ইয়াবা জব্দ বান্দরবানে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন আজ আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী যান্ত্রিক এবং মানবিক ত্রুটি দূর করতে পারলে ইভিএম গ্রহণযোগ্য হবে

কচুর মুখীর ভিতরে অভিনব পদ্ধতিতে মাদক পাচার

মো:একরামুল হক হাটহাজারী প্রতিনিধি:  নিত্য-নতুন মাদক পাচারের পদ্ধতির অংশ হিসেবে এবার কচুর মুখীর ভিতরে সবজীর আড়ালে সর্বনাশা মাদক ইয়াবা পরিবহনের সময় ৩ মহিলা ইয়াবা ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম।

১। র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস্য উদঘাটন,অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃঙ্খলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। র‌্যাব-৭ চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, ডাকাত, ধর্ষক, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, মাদক উদ্ধার, ছিনতাইকারী, অপহরনকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারন জনগনের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

২। র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী কক্সবাজার হতে সিএনজি যোগে মাদকের একটি বড় চালান নিয়ে চট্টগ্রামের দিকে আসছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে গত ১৭ ফেব্রæয়ারী ২০২২ ইং তারিখ ১৭৪৫ ঘটিকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি চৌকস আভিযানিক দল চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী এলাকায় একটি চেক পোষ্ট স্থাপন করে গাড়ী তল্লাশী শুরু করে। তল্লাশীর এক পর্যায়ে একটি সিএনজি থেকে নেমে তিন জন মহিলা সু-কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টাকালে র‌্যাব সদস্যরা আসামী ১। ফাতেমা বেগম @ মনু @ আনোয়ারা (৪০), স্বামী- হোসেন আহম্মদ, সাং- দক্ষিণ রুমালিয়া ছড়া থানা- কক্সবাজার সদর, জেলা- কক্সবাজার, ২। হালিমা বেগম (৩২), স্বামী- আব্দুর রহিম, সাং- দক্ষিণ রুমালিয়া ছড়া, থানা- কক্সবাজার সদর, জেলা- কক্সবাজার এ/পি-লম্বরিয়াপাড়া, থানা- রামু, জেলা- কক্সবাজার এবং ৩। আসমাউল হুসনা (২৬), স্বামী- জসিম উদ্দিন, সাং- দক্ষিণ রুমালিয়া ছড়া, থানা- কক্সবাজার সদর, জেলা- কক্সবাজারদেরকে আটক করে। পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে আসামীদের হাতে থাকা শপিং ব্যাগের ভিতরে কচুর মুখী নামক সবজির অভ্যন্তরে বিশেষ কায়দায় সংরক্ষিত অবস্থায় ১৮,৬০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ আসামীদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

৩। গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই আপন বোন, যেখানে ফাতেমা এই অবৈধ মাদক ব্যবসা ও পাচারের পারিবারিক ব্যবসার মূল হোতা। তারা মোট ০৮ বোন এবং সবাই মাদক (ইয়াবা) ব্যবসার সাথে জড়িত। তারা এতই বিশেষজ্ঞ যে তারা তাদের ছোট বাচ্চাদের, এমনকি নিজের কন্যাদের ০৫ মাস বয়সী বাচ্চাকেও নিয়ে গেছে, এটি চিত্রিত করার জন্য যে তারা পরিবারের সদস্য এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ভ্রমণ করছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, তারা মাদক বহনে অত্যন্ত দক্ষ এবং আইন প্রযোগকারী সংস্থার সমস্ত চেকপোস্ট এড়াতে একটি অনন্য পথ অনুসরণ করে। প্রথমে তারা সবজির উপরের অংশ (কচুরমুখী) কেটে ভিতরে খালি করে ইয়াবা লুকিয়ে রাখে, তারপর পলিথিনের ব্যাগে মুড়িয়ে ইয়াবা রাখে। তারপর টমেটো এবং অন্যান্য শাকসবজি নিয়ে যায়। তারা চকোরিয়া পর্যন্ত আসে তারপর পুলিশ ও অন্যান্য চেকপোস্ট এড়াতে ফাশিয়াখালী-লামা-আলীকদম-বিলছড়ি-লোহাগাড়া পথ অনুসরণ করে। পরে তারা সবাই সাতকানিয়ার কেরানিরহাটে এসে সেখান থেকে দুই দলে বিভক্ত হয়ে যায় যেখানে একটি দল নিয়মিত চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক অনুসরণ করে এবং অন্যটি কেরানিরহাট-বান্দরবান-চন্দ্রঘোনা-রাঙ্গুনিয়া রুট অনুসরণ করে এবং হাটহাজারী পিএস পর্যন্ত কোনো সনাক্ত বা চেক ছাড়াই পৌঁছায়।

৪। গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ কক্সবাজার জেলা হতে ইয়াবা ট্যাবলেট স্বল্পমূল্যে ক্রয় করে পরবর্তীতে তা বেশি মুনাফা লাভের আশায় চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলের মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট পাচার করে আসছে এবং উক্ত আসামীরা ইয়াবা পাচারে সবসময়ই নিত্যনতুন কৌশল অবলম্বন করে ইয়াবা পাচার করে আসছে।উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের আনুমানিক মূল্য ৫৬ লক্ষ টাকা।

৪। গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

(Visited 4 times, 1 visits today)