শিরোনাম :
বায়তুশ শরফ আনজুমনে ইত্তেহাদের উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) এর প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত। জাফর আহমেদ খোকা মেহেরুননেছা ফয়েজ উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মনোনীত মিরসরাইয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন বাপ্পি চন্দ্র লোহাগাড়ার কৃতি সন্তান অধ্যক্ষ এম সোলাইমান কাসেমীর এম.ফিল ডিগ্রী অর্জন.. শ্রমিক নেতা গোলাম মাওলার মৃত্যু বার্ষিকী পালিত সাংবাদিক সংসদ কক্সবাজার’র বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষার বাধ্যবাধকতা ছাড়া শিক্ষা ব্যবস্থা অসম্পূর্ণ কক্সবাজার বিমানবন্দরের শাহ্ আবদুল মালেক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নামকরণের দাবি জাহাজী প্রবিন নেতা আবুল কাসেম সারেং এর ইন্তেকাল লেবাননে শান্তিরক্ষা মিশনে এ অংশ নিতে নৌবাহিনীর ৭৫ সদস্যের চট্টগ্রাম ত্যাগ

বাংলাদেশি মুদ্রা ’টাকা’ র ইতিহাস

মহিউদ্দিন ওসমানী, চট্টগ্রাম ট্রিবিউন: টাকা(মুদ্রা প্রতীক: ৳; ব্যাংক কোড: BDT) হল বাংলাদেশের মুদ্রা। বাংলাদেশের জন্ম ১৯৭১ সালে হলেও শুরুটা ছিল ১৯৪৭ সালে পূর্ব পাকিস্তান হিসেবে। তখন দেশে পাকিস্তান রুপির প্রচলন ছিল, যেটিকে কাগজে–কলমে টাকাও বলা হতো। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানিদের বিরুদ্ধে বাঙালি জাতীয়তাবাদীরা বেসরকারিভাবে পাকিস্তানি টাকার একপাশে ‘বাংলা দেশ’ এবং অপর পাশে ‘Bangla Desh’ লেখা রাবার স্ট্যাম্প ব্যবহার করতেন।

১৯৭১ সালের ৮ জুন পাকিস্তান সরকার এই রাবার স্ট্যাম্প যুক্ত টাকাকে অবৈধ এবং মূল্যহীন ঘোষণা করে। জানা যায় এরপরেও ১৯৭৩ সালের ৩রা মার্চ পর্যন্ত এই রাবার স্ট্যাম্পযুক্ত পাকিস্তানি টাকা চলেছিল সারা দেশে।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পরে নতুন মুদ্রা প্রচলনের ঘোষণা দেয়া হয়। তাতে সময় লেগেছিল তিন মাসের মতো। তাই ঐ সময়ে পাকিস্তানি রুপিই ব্যবহৃত হতো। ১৯৭২ সালের ৪ঠা মার্চ বাংলাদেশি কারেন্সিকে ‘টাকা’ হিসেবে ঘোষণা দেয়া হয়। সূত্র: ইন্টারনেট সিটি০১/এমওসমানী/০১

(Visited 34 times, 1 visits today)