শিরোনাম :
সন্দ্বীপে যৌন হয়রানি প্রতিরোধে সচেতনতামূলক পথসভা  মেক্সিকোর বিপক্ষে জয়ের ছন্দ ধরে রাখল আর্জেন্টিনা মীরসরাইয়ে ইতিহাস গ্রন্থ আলোচনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন শিশু বাচ্চা আয়াতকে ৬ টুকরা করে নদীতে ফেলে দেয় সাবেক ভাড়াটিয়া প্রধান আসামি আবির আলী গ্রেফতার শিশু আয়াতকে অপহরণের পর ৬ টুকরো করে ফেলে দেয় সাগরে চট্টগ্রামে আ’লীগের জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত করতে হবে: মোঃ শেখ সেলিম চট্রগ্রামে আ’লীগের জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত হবেঃ আবুল হোসেন বাবুল কিভাবে বাড়ি বা প্রতিষ্ঠানের নাম ও ঠিকানা গুগল ম্যাপে যুক্ত করবেন মিরসরাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় আহত নুর আলম নিহত এলাকার মানুষের ক্ষোভ ২৮ নভেম্বর এসএসসি’র ফল প্রকাশ করা হবে

হাজারো পর্যটকদের পদচারনায় মুখরিত সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটায়

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি:  হাজারো পর্যটকদের পদভারে মুখরিত সূর্যদয়-সূর্যাস্তের কুয়াকাটা। শীতের শেষ ভাগে দেশী বিদেশী পর্যটকসহ স্থানীয়দের কমতি নেই পর্যটন স্পটগুলোতে। দীর্ঘ ১৮ কিলোমিটার সৈকত জুড়ে পর্যটকের উপচে পড়া ভীড়। আর এ পর্যটকের ভীড়ে পর্যটন শিল্প কুয়াকাটা যেন ফিরে পেয়েছে নতুন করে প্রানচাঞ্চলতা।  সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, ভ্রমন পিপাসু নানা বয়সের হাজারো মানুষ সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটার নৈসর্গিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে ছুটে এসেছেন। কেউ নিজে, কেউ পরিবার পরিজন নিয়ে, কেউ বা নিজের পছন্দের মানুষটিকে নিয়ে দেখতে এসেছেন সাগর কন্যা কুয়াকাটা। পর্যটকদের উপচে পড়া ভীড়ে কুয়াকাটা খাবার হোটেলসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে কেনা বেচার ধুম পড়েছে। অধিকাংশ হোটেল, মোটেলের রূম আগাম বুকিং হয়ে যাওয়ায় সদ্য কুয়াকাটায় ভ্রমনে আসা পর্যটকদের ভালো রূম পেতে কষ্ট হলেও কুয়াকাটার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য সব দু:খ ভুলিয়ে দিয়েছে। পর্যটকদের আনন্দ-উচ্ছাসে গোসল করতে দেখে গেছে। কুয়াকাটা জিরো পয়েন্টে শ্রীমঙ্গল বৌদ্ধবিহার, মিশ্রিপাড়া সিমা বৌদ্ধ বিহার, জাতীয় উদ্যান, লেম্বুর চর, শুটকি পল্লী, রাখাইন মহিলা মার্কেট, গঙ্গামতি, কাউয়ারচর, লাল কাকড়ার চর, চর-বিজয়, ইলিশ পার্ক সহ পর্যটন স্পটগুলো এখন পর্যটকদের পদচারনায় মুখরিত হয়ে আছে। আর এ পর্যটকদের নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তায় কাজ করছে কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশ।
টাঙ্গাইল থেকে স্বপরিবারে ঘুরতে আসা মো. রফিক মিয়া বলেন, ভালো হোটেলে রূম না পেলেও কুয়াকাটার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আমাদের সব কষ্ট ঘুচিয়ে দিয়েছে। কিন্তু কুয়াকাটার ভাঙ্গন রক্ষায় সরকারের ব্যবস্থা নেয়া উচিত। সিলেট থেকে আসা রহমান মিয়া জানান, সূর্যাস্ত ও সূর্যদয় দেখেছি। কুয়াকাটার পরিবেশ আমাদের মুগ্ধ করেছে।
কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোতালেব শরীফ জানান, বন্ধের দিন গুলিতে কুয়াকাটায় পর্যটকদের চাপ একটু বেশি থাকে। পর্যটকদের কাঙ্খিত সেবা দিতে আমারা হোটেল-মোটেল মালিক সমিতি সব সময় প্রস্তুত। এছাড়া লেবুখালির ব্রীজটা যদি হয়ে যেত, তবে পর্যটকের সমাগম আরও অনেক বেশি বাড়ত।
কুয়াকাটা ট্যুরিষ্ট পুলিশের সিনিয়র এএসপি মো.জহিরুল ইসলাম জানান, সাপ্তাহিক ছুটির দিন ও এসএসসি পরীক্ষা শেষ উপলক্ষে ব্যাপক পর্যটকদের সমাগম ঘটেছে। সৈকতে পর্যটকদের নির্বিঘেœ চলাফেরা এবং অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে দিকে সার্বক্ষনিক নজর রাখা হচ্ছে। এছাড়া পর্যটকরা কোন সমস্যার সম্মুখীন হলে ট্যুরিস্ট পুলিশের সহযোগিতার নেয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

(Visited 19 times, 1 visits today)